মেনু নির্বাচন করুন

হাজী আব্দুল মালেক গার্লস হাই স্কুল

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সুজলা সুফলা সিণগ্ধ শ্যামলিমার প্রাচুর্যে ভরপুর বাংলাদেশের দÿÿন পশ্চিমাঞ্চলের সুন্দরবনের ছোয়া লাগা জনকোলাহল মুখর খুলনা মহা-নগরীর অদূরে রূপময়ী রূপসা নদীর সেণহবারি সিঞ্চিত রূপসা শিল্পাঞ্চল এলাকা হিসেবে খ্যাত শিপইয়ার্ড নিকটবর্তী ‘মতিয়াখালী’ এলাকায় বহুল জনগোষ্ঠীর চাহিদার নিরীখে একমাত্র নারী শিÿা প্রতিষ্ঠান হাজী আব্দুল মালেক গার্লস হাই স্কুল। বিদ্যালয়টি ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। ০১-০১-১৯৮৪ সালে  স্বারক নং বি.অ/২/৪৩৮/২১৮৪ মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। প্রতিষ্ঠানটিতে বর্তমানে তথ্য প্রযুক্তি ভিত্তিক জ্ঞান দানের পাশাপাশি খেলাধুলা, সহপাঠক্রমিক কার্যাবলী ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের উন্নয়নের জন্য বিভিন্ন পদÿÿপ নেয়া হয়েছে। বিদ্যালয়টিতে লেখাপড়ার মান দিন দিন উন্নিত হচ্ছে। লেখাপড়া ও পরিবেশের দিক দিয়ে বিদ্যালয়টি খুলনার নামকরা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি।

০১/০১/১৯৭২ ইং

০১/০১/১৯৭২ সালে স্থানীয় কতিপয় গন্যমান্য শিÿানুরাগী ও বিদ্যোৎসাহী ব্যাক্তিবর্গ নারী শিÿা প্রসারের লÿÿ্য স্কুলটি স্থাপন করেন। জনাব মরহুম আলহাজ্ব এম, এ মান্নান বিদ্যালয়টির জন্য ৫০ শতক জমি দান করেন। দ্বানবীর হিসাবে খ্যাত যশস্বী মরহুম জনাব হাজী আব্দুল মালেক বিদ্যালয়টিকে নগদ অর্থ দান এবং ১৯৯১ সালে একটি তিন কÿ বিশিষ্ট একটি একতলা ভবন নির্মান করে দেন। পরবর্তিতে ভবনটি দোতলায় উন্নিত করা হয়। ০১/০১/১৯৮৩ ইং সালে বিদ্যালয়টি যশোর বোর্ড কর্তৃক অনুমোদন লাভ করে যার স্বারক নং বি.অ/২/৪৩৮/২১৮৪ এবং ঐ একই সালে বিদ্যালয়টি এম,পি,ও ভুক্ত হয়। কিন্তু কোন এক কারনে ০১/০১/১৯৮৯ সালে বিদ্যালয়টির স্বীকৃতি বাতিল হয় এবং এম,পি,ও বন্ধ হয়ে যায়। এরপর বিদ্যালয়টি পুনরায় ০১/০৬/১৯৯২ ইং সালে নিমণ মাধ্যমিক এবং ০১/০১/১৯৯৪ সালে যশোর বোর্ড কর্তৃক এটি পূর্নাঙ্গ মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসাবে স্বীকৃতি লাভ করে। বর্তমান প্রধান শিÿক জনাব মোঃ জাকির হোসেন ১৮/০৫/১৯৯৮ ইং তারিখ হতে দায়িত্বভার গ্রহন করার পর তার যোগ্য ও গতিশীল নেতৃত্বে এবং সকল শিÿক-শিÿÿকা মন্ডলীর অক্লামত্ম পরিশ্রমের ফলে বিদ্যালয়টি দিন দিন ধারাবাহিক সফলতা অর্জন করতে থাকে। এরপর সুন্দরবন এ,ডি,পি (ওয়ার্ল্ড ভিশন, খুলনা) এর সহায়তায় ২০০২ সালে আর একটি একতলা পাকা ভবন নির্মিত হয় এবং ২০১১ সালে শিÿা প্রকৌশল অধিদপ্তর কর্তৃক প্রায় ৩০ লÿ টাকা ব্যয়ে তিন কÿ বিশিষ্ট আরও একটি পাকা ভবন নির্মিত হয়। একই সাথে একই বছরে বিদ্যালয়ের নিজস্ব তহবিল দ্বারা প্রায় ছয় লÿ টাকা ব্যয় সাপেÿÿ ২ টি কÿ এবং একটি দর্শনীয় স্কুল গেট  নির্মান করা হয়। এছাড়া ২০১১ সালের জুন মাসে সরকারীভাবে বি,সি,সি কর্তৃক ৮ টি কম্পিউটার ও ১ টি ল্যাপটপ পাওয়া গেছে। স্কুলটিতে বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিÿা ও মানবিক সহ সকল বিভাগের  স্থায়ী অনুমোদন রয়েছে। বর্তমানে প্রায় ছয় শতাধিক ছাত্রী অধ্যয়নরত আছে। প্রতি বছর ছাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
মোঃ জাকির হোসেন 0 zakir_hossain@yahoo.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

মোট ছাত্রী সংখ্যা                                ঃ ৫৫২ জন

 

 

 

    ছাত্রী সংখ্যা শ্রেনী ভিত্তিক                       ঃ

শ্রেণী

শাখা

মোট

৬ষ্ঠ

৯০

৯৫

১৮৫

৭ম

৯৫

-

৯৫

৮ম

১৪০

-

১৪০

৯ম

৮২

-

৮২

১০ম

৫০

-

৫০

মোট =

৫৫২

৭০%

বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীÿার ফলাফলঃ

 

 

ক) সমাপনী/জে, এস, সি

পরীÿার নাম

সাল

পরীÿার্থীর সংখ্যা

সাধারন বৃত্তি প্রাপ্ত সংখ্যা

জুনিয়র বৃত্তি

২০০৫

২০

জে,এস,সি

২০১০

৮৩

২৮ (পাশ)

জে,এস,সি

২০১১

৯৯

৯২ (পাশ)

 

 

 

খ) পাবলিক/এস,এস,সি

পরীÿার নাম

সাল

পরীÿার্থীর সংখ্যা

উত্তীর্ন শিÿার্থীর সংখ্যা

পাশের হার

জে,এস,সি

২০১০

৮৩

২৮

৩৪%

জে,এস,সি

২০১১

৯৯

৯২

৯৩%

এস,এস,সি

২০০৭

৫৬

৩১

৫৬%

এস,এস,সি

২০০৮

৪৩

২৯

৬৮%

এস,এস,সি

২০০৯

৩৬

২২

৬১%

এস,এস,সি

২০১০

৪৫

৩৮

৮৫%

এস,এস,সি

২০১১

৬২

৫২

৮৪%

২০০৫ সালে বিদ্যালয় হতে জুনিয়র বৃত্তি পরীÿায় বৃত্তি লাভ করে। ২০০৭ সালে এস,এস,সি পরীÿায় বিজ্ঞান বিভাগ হতে গোল্ডেন A+এবং ২০০৮ সালে ব্যবসায় শিÿা বিভাগ হতে গোল্ডেন A+সহ যশোর বোর্ডে মেধা তালিকায় স্থান লাভ করে। ২০০৭ সালে খুলনা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে সুনিপুন শরীরচর্চা প্রদর্শন করে বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা প্রথম স্থান অধিকার করে। প্রতিবছর এই ধারাবাহিকতা অব্যহত আছে। বর্তমানে বিদ্যালয়টিতে প্রায় ছয় শতাধিক ছাত্রী অধ্যয়নরত আছে। নারী শিÿা প্রসারে বিদ্যালয়টির প্রতিষ্ঠাতা জনাব আলহাজ্ব এম, এ মান্নান, দাতা সদস্য জনাব হাজী আব্দুল মালেক সাহেব এবং ক্রমোন্নতির ÿÿত্রে মরহুম দানবীর হাজী আব্দুল মালেক সাহেব এবং   বিদ্যোৎসাহী মরহুম এম, এ, হামিদ মোলস্না, জনাব এইচ, এম, এ খালেক, জনাব ডাঃ মোঃ সেকেন্দার আলী সহ অনেকেই অক্লামত্ম পরিশ্রম করে গেছেন। মহানুভব সরকারের দৃষ্টি আকর্ষিত হলে এবং উপযুক্ত পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এতদাঞ্চলের নারী শিÿার একমাত্র প্রতিষ্ঠান হাজী আব্দুল মালেক গার্লস হাই স্কুলটি তার সুদÿ প্রধান শিÿক ও যোগ্যতা সম্পন্ন শিÿক মন্ডলীর ঐকামিত্মক চেষ্টায় অচিরেই একটি শ্রেষ্ঠ শিÿা প্রতিষ্ঠানে উন্নীত হবে বলে সংশিস্নষ্ট সকলেই আশাবাদে উদ্দীপ্ত হয়ে আছে।

মোবাইল ঃ ০১৮১৮-৮৩১১৯২

  টেলিফোনঃ ০৪১-৮১২৬০০

  em@il : www.haziabdulmalekgirlshighschool@ymail.com



Share with :

Facebook Twitter